ফোর্বসের ‘থার্টি আন্ডার থার্টি এশিয়া’ তালিকায় ৯ বাংলাদেশি

শিল্পকলা, প্রযুক্তি, যোগাযোগমাধ্যম, ফিন্যান্স সহ বিভিন্ন বিভাগে তালিকায় স্থান পাওয়া ব্যক্তিরা তাদের নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে পরিবর্তন আনার পাশাপাশি উদ্ভাবন ক্ষমতা প্রদর্শন করেছেন।